অলৌকিক হাত প্রচার করে কিছু ভণ্ড প্রতারক চক্রের ব্যবসা !

হাতের মত দেখা যাচ্ছে মস জাতীয় উদ্ভিদ বা ছত্রাক।ওই ছত্রাককে অলৌকিক হাতের উত্থান এবং ওই হাত ভেজানো পানি খেলে যেকোন রোগ ভাল হয় বলে অপপ্রচার করছে স্থানীয় একটি ভণ্ড চক্র।

জামালপুরের ইসলামপুরের গাইবান্ধা ইউনিয়নের আগুনেরচর এলাকায় একটি আম গাছের গোড়া থেকে ঐ হাত সদৃশ্য ছত্রাক গজিয়ে উঠেছে।

আর ওই ভণ্ডামীর ফাঁদে পা দিয়ে প্রতিদিন প্রতারিত হচ্ছেন শতশত মানুষ। শুক্রবার দুপুরে সরেজমিন ঘুরে জানাগেছে, ইসলামপুরের গাইবান্ধা ইউনিয়নের আগুনেরচর এলাকায় মরহুম কিতাব আলীর পুকুর পাড়ে কয়েক বছর আগে কেটে ফেলা একটি আম গাছের গোড়ার নিচ থেকে মস জাতীয় দুটি ছত্রাক বেড়িয়েছে। ছত্রাক দুটির মধ্যে একটি দেখতে অনেকটাই মানুষের হাতের মতো। ওই হাত সদৃশ্য ছত্রাককে স্থানীয় একটি চক্র অলৌকিক হাতের উত্থান বলে অপপ্রচার করছে এবং অলৌকিক ওই হাত ভেজানো পানি খাইলে মানুষের রোগ ভাল হয় বলে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। তারা হাত সদৃশ্য ছত্রাকের জায়গাটি মাজারের রুপ দিয়ে সাজিয়ে সেখানে স্থানীয় নাপিতেরচর গ্রামের মোঃ পলাশ নামের একজন অর্ধ পাগলকে বসিয়ে তাকে দিয়ে আগন্তুকদের হাতে বোতল ভর্তি পানি দিচ্ছে এবং নগদ টাকা পয়সা আদায় করছে।

184830chatrak_kalerkantho_pic

ওই অপপ্রচারে মুগ্ধ হয়ে কুসংস্কারাচ্ছন্ন শতশত মানুষ বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিদিন সেখানে এসে যে যার মতো করে টাকা দান করে বোতল ভরে পানি নিয়ে যাচ্ছে রোগ মুক্তির আশায়। আর কুসংস্কারাচ্ছন্ন ওইসব মানুষের আগমনকে আরও প্রাণবন্ত করতে স্থানীয় একটি চক্র সেখানে কিছু পাগলকে ডেকে এনে গান-বাজনা করাচ্ছে ও গঞ্জিকার আসর বসিয়েছে। এছাড়াও স্থানীয় ওই চক্রটি মৃত আম গাছের গুড়িসহ হাতের মত ছত্রাকটি লাল সালু কাপড় ও রং বেরঙের জড়ি দিয়ে পেঁচিয়ে সেটিকে জিন্দা পীরের হাতের মাজার বলে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।