আমাজনের নিচে তার চেয়েও বৃহৎ এক নদীর সন্ধান পাওয়া গেছে !

বিজ্ঞানীরা আমাজন নদীর নীচে একটি নতুন নদীর সন্ধান পেয়েছেন। প্রস্থে তা আমাজনের চেয়ে দ্বিগুণ বড়।

প্রকৃতির অন্যতম বিস্ময় আমাজন অববাহিকা ও তার আশপাশের এলাকা। কত বিস্ময় যে এর অতলে লুকিয়ে রয়েছে তা বোধহয় একমাত্র সৃষ্টিকর্তাই জানেন। আমাজন অববাহিকা পৃথিবীর অন্যতম বড় ও অনন্য বলে সারা বিশ্বে পরিচিত।

এটি বিস্তৃত ৭০ লাখ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে। তবে এর বেশিরভাগটাই এখনও অজানা থেকে গেছে। যেমন একজন ব্রাজিলীয় বিজ্ঞানী আমাজন অববাহিকার নীচে একটি নতুন নদীর সন্ধান পেয়েছেন।

আমাজন অববাহিকায় নদীর ৪ কিলোমিটার গভীরে এই নদীটি বহমান। নাম রিও হামজা। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, আমাজন নদী যতটা দীর্ঘ এটিও দৈঘ্যে ততটাই বড়। তবে প্রস্থে আমাজনের চেয়ে এটি অনেক বেশি বিস্তৃত।

জানা গেছে, আমাজন ও রিও হামজা দুটি নদীই প্রায় ৬ হাজার কিলোমিটার এলাকা জুড়ে পশ্চিম থেকে পূর্বের দিকে বয়ে চলেছে। তবে যেখানে আমাজন নদী প্রস্থে ১ কিলোমিটার থেকে ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত বিস্তৃত, সেখানে হামজা নদী ২০০ কিমি থেকে ৪০০ কিমি পর্যন্ত বিস্তৃত।

দুটি নদীই উৎপত্তিস্থল থেকে শুরু করে শেষপর্যন্ত গিয়ে আটলান্টিক মহাসাগরে গিয়ে পড়েছে।

উপরের আমাজন নদীর পানির গতিবেগ অনেক বেশি। প্রচুর বেশি পরিমাণে পানি বহন করে। সেখানে হামজার পানির বেগ অনেকটা স্থবির, শান্ত। কয়েকবছর আগে এই নিয়ে অনেক গবেষণার পরে নদীটির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

রিও হামজা সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য ব্রাজিলের রিও ডি জেনারিওর ‘জিওফিজিক্যাল ন্যাশনাল অবজারভেটরি’তে সংগৃহীত রয়েছে। বলা হয়েছে, আমাজনের নীচে নদীর অস্তিত্ব খুঁজে বের করতে বিজ্ঞানীরা গণিত মডেলের সাহায্য নিয়েছেন। মাটির ও পানির নীচে তাপমাত্রার নানা পরিবর্তনকে লক্ষ্য করেও নয়া সূত্র পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। গবেষণাপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে কীভাবে একবার উলম্বভাবে আবার কখনও দিগন্ত বিস্তৃতভাবে রিও হামজা নদীর প্রবাহপথ পরিবর্তিত হয়েছে।