আর্জেন্টিনা আশাবাদী; কিন্তু বাদ পড়ার শঙ্কায় ব্রাজিল !

রিও অলিম্পিকের প্রথম দিন থেকেই যেন শুরু হয়েছে জায়ান্টদের বিদায়ের পালা। দ্বিতীয় দিনে বিদায় নিয়েছেন টেনিস তারকা উইলিয়ামস বোনদ্বয়, টেনিস স্টার জকোভিচ, ইরাকের মতো খর্বশক্তির দলের সঙ্গে ড্র করে স্বাগতিক ব্রাজিলের ফুটবল এখন প্রথম রাউন্ড থেকেই বাদ পড়ার শঙ্কায়। অন্যদিকে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আলজেরিয়াকে হারিয়ে টিকে থাকার স্বপ্ন দেখছে আর্জেন্টিনা।

প্রথম ম্যাচে পর্তুগালের কাছে ২-০ গোলে পরাজয়ে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা বড় এক ধাক্কা খেয়েছিল। আজ হারলেই গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হতো তাদের। তবে আলজেরিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে এখনও প্রতিযোগিতায় টিকে রইল আর্জেন্টিনা। আগামী বুধবার হন্ডুরাসের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচেই আর্জেন্টিনার ভাগ্য নির্ধারিত হবে। দ্বিতীয় পর্বে যেতে হলে হন্ডুরাসকে হারাতেই হবে তাদের। টানা দুই ম্যাচ হেরে আলজেরিয়া এরই মাঝে ছিটকে পড়েছে প্রতিযোগিতা থেকে। আর টানা দুই জয়ে পর্তুগাল পৌঁছে গেছে পরের পর্বে।

অন্যদিকে ব্রাজিলের জন্য হয়ত দুঃসংবাদ অপেক্ষা করছে। কোপা আমেরিকায় গ্রুপ পর্বে বাদ পড়ার হতাশা কাটতে না কাটতেই এবার নিজেদের মাঠে অলিম্পিকের গ্রুপ পর্বেও বাদ পড়ার শঙ্কায় স্বাগতিক ব্রাজিল। প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার পর এবার আরেক সহজ প্রতিপক্ষ ইরাকের বিপক্ষেও গোলশূন্য ড্র করেছে তারা। গোলশূন্য নেইমার, নিষ্প্রভ আক্রমণভাগ, টিমওয়ার্কের অভাব- সব মিলিয়ে ব্রাজিলের গ্রুপ পর্ব পার হওয়া এখন অন্য দলের ওপর নির্ভর করছে। ব্রাজিলের পরের ম্যাচ গ্রুপে ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকে ডেনমার্কের বিপক্ষে।

আর ইরাকের ম্যাচ সবচেয়ে দুর্বল, ১ পয়েন্ট নিয়ে শেষে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। শেষ ম্যাচটা ইরাক জিতে গেলে ব্রাজিলকেও জিততেই হবে। শুধু তা-ই নয়, ইরাক যদি গোল করে ড্র করে (১-১ বা ২-২ এমন স্কোরে) ব্রাজিল গোলশূন্য করলেও বাদ পড়ে যাবে। তবে ইরাকের অসাধারণ খেলা ব্রাজিলের জন্য আশার বাণী শোনাচ্ছে না। গ্রুপ পর্ব উতরাতে হলে ব্রাজিলের জয় ছাড়া অন্য কিছু চিন্তা করার সুযোগ নেই। তবে ইরাক ও ব্রাজিল যদি নিজেদের শেষ ম্যাচটি জিতে যায় তবে দুই দলই কোয়ার্টার ফাইনালে চলে যাবে। তখন বাদ পড়বে ডেনমার্ক।