একসময়ের মেকানিক এখন বুর্জ খলিফার ২২টি ফ্ল্যাটের মালিক

এই বিল্ডিংয়ে তুমি কোনোদিন জায়গা করতে পারবে না। দুবাইয়ে অবস্থিত পৃথিবীর উচ্চতম বহুতল বুর্জ খলিফার দিকে দেখিয়ে বলেছিলেন এক বন্ধু। তাৎক্ষণিক খারাপ লেগেছিল। কিন্তু তিনি দেখিয়ে দিলেন। আর আজ এক আধটা নয়, সেই বুর্জ খলিফা বিল্ডিংটির ২২টি অ্যাপার্টমেন্টের মালিক তিনি।

শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। তিনি জর্জ ভি নেরেআপারামবিল। অথচ সহজ ছিল না তাঁর বড় হয়ে ওঠা। কারণ, একসময় বাবার কাছে কাজ করতেন তিনি। কাজ করেছেন মেকানিকেরও। তবে পয়সা রোজগারের ইচ্ছা ছিল, ছিল প্রবল ব্যবসায়িক বুদ্ধি। জানিয়েছেন, ক্লাস ইলেভেন থেকে রোজগার করতে শুরু করেছিলেন। আবর্জনা কুড়িয়ে রোজগার করতেন। আর সেই আবর্জনায় তাঁর স্বপ্নকে সফল করেছে যেন। কীভাবে? স্মৃতিচারণ করে জানাচ্ছেন, তাঁদের গ্রামে তুলোর চাষ হতো।

তুলোর বীজ ফেলে দিতেন সেখানকার বাসিন্দারা। কিন্তু সেই বীজ থেকে যে ভালো আঠা প্রস্তুত করা যায় তা জানতেন নেরেআপারামবিল। ব্যাস আর পিছনে ফিরে তাকাননি তিনি। শুরু করেন বীজ সংগ্রহ করে আঠা তৈরির কাজ। আর আজ সেই আঠার দৌলতেই তিনি কোটিপতি। তবে এখানেই থেমে থাকতে চান না তিনি। জানালেন, “স্বপ্ন দেখা বন্ধ করতে চাই না আমি। সুযোগ পেলে আরও অ্যাপার্টমেন্ট কিনতে চাই।”