এটি হাদীস নয় : তালিবুল ইলমের জন্য সত্তর হাজার ফিরিশতা ডানা বিছিয়ে দেন

জনৈক ওয়ায়েয তালিবুল ইলমের ফযীলত বর্ণনা করতে গিয়ে বলেছেন, ‘‘যে ব্যক্তি ইলম অন্বেষণের জন্য পথ চলে তার পায়ের নিচে সত্তর হাজার ফিরিশতা ডানা বিছিয়ে দেন।’’

এটি হাদীস নয়। আমাদের জানামতে এমন কথা হাদীসের প্রসিদ্ধ ও নির্ভরযোগ্য গ্রন্থসমূহে নেই। বরং এ ব্যাপারে সহীহ ও প্রসিদ্ধ হাদীস হল, (যেখানে ফিরিশতার ডানা রাখার কথা আছে কিন্তু ফিরিশতার কোনো সংখ্যার কথা উল্লেখ নেই।) ‘‘ যে ব্যক্তি ইলমের জন্য পথ চলে আল্লাহ তার জন্য জান্নাতের পথ সহজ করে দেন। আর ফিরিশতারা তালিবুল ইলমের প্রতি সন্তুষ্ট হয়ে ডানা রেখে দেন। আর আলেমের জন্য আসমান ও যমিনের অধিবাসিরা ইসতিগফার (ক্ষমা প্রার্থনা) করতে থাকে। এমনকি সমুদ্রের মাছ পর্যন্ত তাঁদের জন্য ইসতিগফার করতে থাকে।…’’

(জামে তিরমিযী, হাদীস ২৬৮২; সুনানে আবু দাউদ, হাদীস ৩৬৪১; সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদীস ২২৩; শুআবুল ঈমান, বায়হাকী, হাদীস ১৫৭৩; সহীহ ইবনে হিববান, হাদীস ৮৮)

হাদীসের আরবী পাঠ নিম্নরূপ-

“…من سلك طريقا يبتغي فيه علما، سلك الله به طريقا إلى الجنة، و إن الملائكة لتضع أجنحتها رضى لطالب العلم، و إن العالم ليستغفر له من في السموات و من في الأرض حتى الحيتان في الماء…”

সুতরাং তালিবুল ইলমের ফযীলত বিষয়ে উল্লিখিত হাদীসসহ আরো যেসব সহীহ হাদীস রয়েছে সেগুলোই বলা উচিত।

দ্রষ্টব্য: কেউ কেউ এই হাদীসের لتضع أجنحتها এই বাক্যের ব্যাখ্যা করেছেন -‘‘ডানা বিছিয়ে দেয়া।’’ আবার কেউ বলেছেন এর অর্থ হল ‘‘ তালিবুল ইলমের সম্মানে বিনয়াবনত হওয়া’’। কেউ বলেছেন, ‘‘ উড্ডয়ন বন্ধ করে থেমে যাওয়া ও যিকিরের জন্য অবতরণ করা।’’ মূলত এ বাক্যের মাঝে এ সবকটি অর্থেরই অবকাশ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.