এবার এক মুসলিম যাত্রীকে অবমাননা করায় বিমান থেকে বহিষ্কার করা হল অবমাননাকারীকে

মুসলমান নারীদের হিজাবের কারণে অধিকাংশ পশ্চিমা দেশগুলোতে বিভিন্ন সময়ে লাঞ্ছনার স্বীকার হতে হয় এবং অনেক ক্ষেত্রে তাদেরকে বিমান থেকে বহিষ্কার করা হয়।

তবে এবার মুসলিম যাত্রীকে অবমাননা করায় বিমান থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে অবমানকারীকে। আয়ারল্যান্ডের “এয়ার লিন্গুস” নামক এয়ার লাইনে দুই জন মুসলমানকে অবমাননা করার জন্য বিমান থেকে এক ব্যক্তিকে বহিষ্কার করা হয়।

২৩শে অক্টোবর দুই জন মুসলমান যাত্রীকে অবমাননা করার জন্য আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিন থেকে বার্লিনের উদ্দেশ্যে রওনাকৃত “এয়ার লিন্গুস” কোম্পানির একটি বিমান থেকে ইসলাম বিদ্বেষী এক যাত্রীকে বিমান থেকে বের করে দেয় ফ্লাইট ক্রু।

এই ফ্লাইটের মুসলিম যাত্রী খালিদ ওয়াফিক কামাল বলেন: বিমানটি আকাশে উঠার পূর্বে এক যাত্রী অপর দুই মুসলিম যাত্রীর সাথে অপমানমূলক আচরণ করে। ফ্লাইট ক্রু বিষয়টি বুঝতে পেরে ঐ ব্যক্তিকে দ্রুত বিমান থেকে বহিষ্কার করে।

তিনি বলেন: একজন মুসলমান হিসেবে আমি বিমানের পাইলট ক্যাপ্টেন ওশী এবং বিমানের অন্যান্য ক্রুদের ধন্যবাদ জানানোর প্রয়োজন মনে করছি। কারণ তারা যাত্রীদের সম্মান এবং নিরাপত্তা বজায় রেখেছেন।

ওয়াফিক কামাল ফেসবুকে তার ব্যক্তিগত পেশে এয়ার লিন্গুস কোম্পানিকে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেছেন: মানুষ যদি সর্বদা বর্ণ বৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়াই করে, নিঃসন্দেহে বিশ্বের মঙ্গল হবে।

এয়ার লিন্গুস কোম্পানি ওয়াফিক কামালেরে মন্তব্যের প্রশংসা করে লিখেছে: প্লেনের মধ্যে এধরণের ঘটনা ঘটার জন্য আমরা দুঃখিত, তবে ক্রু তার দায়িত্ব পালন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে, এজন্য আনন্দিত।