কীভাবে এমন বিপুল ওজন বাড়ল ইমানের?

দেহের ওজন ৫০০ কেজিরও বেশি। গত ২৫ বছর বাড়ির বাইরে যাননি। বিশ্বের সবচেয়ে মোটা নারী মিসরের বাসিন্দা বছর ছত্রিশের ইমান আহমেদ আবদুলাতির অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শরীরের বহর বেড়েই চলেছে ইমানের। এই মুহূর্তে তার ওজন ৫০১.৬৭৩ কেজির কিছু বেশি। ওজনের কারণেই গত ২৫ বছরে বাড়ির বাইরে পা রাখতে পারেননি উত্তর মিসরের আলেকজান্দ্রিয়াবাসী এই যুবতী। এমনকি বাথরুমে যেতে হলেও কারো সাহায্য তার প্রয়োজন হয়। বহু বছর লেগে থেকে বোনের সমস্যা সমাধান করার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হাল ছেড়েছেন চায়মা আহমেদ আবদুলাতি। শেষে বহিরাগত সাহায্য চেয়ে বিষয়টি তিনি জনসমক্ষে এনেছেন।

পারিবারিক সূত্রে খবর, জন্মের সময় ইমানের ওজন ছিল ৫ কেজি। মাত্র ১১ বছর বয়সে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন বলে পরিবারের দাবি। এরপরই দেহের অতিরিক্ত ওজন বেড়ে যাওয়ার ফলে শয্যাশায়ী হয়ে পড়েন তিনি। মা ও বোন তার সেবায় নিত্য যুক্ত রয়েছেন।

কীভাবে এমন বিপুল ওজন বাড়ল ইমানের?

চিকিত্‍সকদের মতে, পরজৈবিক সংক্রমণের ফলে তিনি এলিফ্যান্টিয়াসিস রোগে আক্রান্ত হন। এই অসুখে মানুষের হা ও পা অতিরিক্ত ফুলে ওঠে। আত্মীয়দের দাবি, অতীতে চিকিত্‍সকরা জানিয়েছিলেন, শরীর থেকে অপ্রয়োজনীয় তরল না বেরোনোর ফলেই ইমানের ওজন বাড়ছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে, অবিলম্বে কায়রোর হাসপাতালে অস্ত্রোপচার না করা হলে ইমনের জীবনসঙ্কট দেখা দিতে পারে।

অতিরিক্ত মেদবৃদ্ধির কারণেই কখনও স্কুলে যেতে পারেননি ইমান। কেউ কেউ আবার মনে করেন, শৈশবে বাবার মৃত্যুতে তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন বলেই শরীরের ওজন দ্রুত বাড়তে শুরু করে।