জার্মানিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ইউরোপের সর্ববৃহৎ কোরঅান প্রতিযোগিতা

জার্মানি, নরওয়ে ও ফ্রান্সসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশের ৫২০ জন প্রতিযোগীর অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে জার্মানিতে শেষ হলো- তৃতীয় কোরআন হেফজ প্রতিযোগিতা।

দিনব্যাপী এ কোরআন প্রতিযোগিতা ২৩ অক্টোবর (রোববার) জার্মানির রাজধানী বার্লিনে অনুষ্ঠিত হয়।

এই কোরআন প্রতিযোগিতাকে ইউরোপের বৃহৎ কোরআন প্রতিযোগিতা মনে করা হয়।

জার্মানির সমাজসেবামূলক ইসলামি সংস্থা ইসলামিক সোসাইটির উদ্যোগে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়।

এবার ছিলো প্রতিযোগিতার তৃতীয় আসর।

জার্মানির ১৬টি প্রদেশ এবং নরওয়ে ও ফ্রান্সসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ৫২০ জন প্রতিযোগী ২ গ্রুপে বিভক্ত হয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।

বড়দের গ্রুপে পুরো ৩০ পারা কোরআনের হাফেজ, আর ছোটদের গ্রুপে ১৫ পারা হেফজকারীরা অংশ নেয়।

বিগত দুই আসরের তুলনায় এবার প্রতিযোগী ছিলো বেশি। তন্মধ্যে এক চতুর্থাংশ প্রতিযোগী অনারব হাফেজ।

প্রতিযোগিতায় পূর্ণ কোরআন (৩০ পারা) হেফজ বিভাগে প্রথম স্থান অধিকার করেছেন জার্মানির হামবুর্গ শহরের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় গ্রহণকারী এক সিরীয় হাফেজ।

প্রতিযোগিতার আয়োজকদের একজন তালহা আমের সুলাইমান প্রতিযোগিতা প্রসঙ্গে বলেন, কোরআন হেফজের বিষয়কে গুরুত্ব প্রদান, ঐশী এ গ্রন্থের বিষয়বস্তু নিয়ে গভীর চিন্তা-ভাবনা ও কোরআনের শিক্ষাভিত্তিক নতুন প্রজন্ম তৈরির প্রতি উৎসাহ প্রদানের লক্ষে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

ভবিষ্যতে প্রতিযোগিতাকে আরও ব্যাপক করার ইচ্ছা রয়েছে আয়োজকদের।

-আল জাজিরা অবলম্বনে