জুমা’য় বায়তুল মুকাররমসহ ত্রিশ লাখ মসজিদে একই খুৎবা-ইসলামিক ফাউন্ডেশন

শুক্রবার বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদসহ সারাদেশের ত্রিশ লাখ মসজিদে জুমা’য় একই খুৎবা দেওয়া হবে। এরইমধ্যে দেশের সব মসজিদে খুৎবা পাঠানো হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বলছে, কোরআন ও সুন্নাহ’র আলোকে ইসলামের প্রকৃত ব্যাখ্যা প্রচারে ধারাবাহিকভাবে জুমা’র খুৎবায় ইসলামের মৌলিক বিষয় অন্তর্ভুুক্ত করা হবে।

শুক্রবার জুমা’র নামাজ আদায়ের পাশাপাশি খুৎবা থেকে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা পাওয়া ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। সম্প্রতি রাজধানীর গুলশান এবং শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার পর শান্তি ও মানবতার কল্যাণে ইসলামের প্রকৃত ব্যাখা তুলে ধরতে খুৎবার বয়ানের জন্য জাতীয় দিকনির্দেশনা প্রণয়নের উদ্যোগ নেয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন,পবিত্র কোরআনে স্পষ্ট বলা হয়েছে যে, “ হে মুসলমানগণ একজন মানুষ, সে যা-ই হোক না কেনো পৃথিবীতে নিরাপদ জীবনধারণের অধিকার স্বীকৃত”।

তিনি আরও বলেন,‘ আমাদের এই দেশের সংবিধানও সকলকে নিজ নিজ ধর্ম পালনের অধিকার দিয়েছে’। কেউ ইসলামের বিধান লঙ্ঘন করলে আইন-আদালত আছে, কোরআন-হাদিসের আলোকেই এই দেশের এই বিচার ব্যবস্থাতেই এর বিচার হতে পারে’।

খুৎবার নির্দেশনায় জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস রোধে সন্তানরা যাতে সন্ত্রাসীদের কবলে না পড়ে সে জন্য অভিভাবকদের করণীয় তুলে ধরা হয়েছে।

এসম্পর্কে ইসলামী ফাউন্ডেশন মহাপরিচালক জানান, ‘মুসলমানগণ আপনারা আপনাদের সন্তানদের বিষয়ে বিশেষভাবে মনোযোগী ও সাবধান থাকুন, তাদেরকে সুন্দর চরিত্রের শিক্ষা দিন। এটা ইসলামের একটি মৌলিক বিধান’।

ইসলামী চিন্তাবিদরা বলছেন, খুৎবায় ইমলামের মৌলিক তথ্য ও প্রকৃত জ্ঞান আরো বেশি বেশি প্রচার করে ইসলামের ভুল ব্যাখ্যা প্রতিহত করা এখন জরুরি হয়ে উঠেছে।