e commerce

ডিজিটাল ই-কমার্সের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে ৮,৫০০উদ্যোক্তাকে

দেশব্যাপী ডাকঘরের সুবিশাল নেটওয়ার্ক ডিজিটাল কমার্সে নিয়োজিত বেসরকারি উদ্যোক্তাদের ব্যবহারের জন্য নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রস্তুত করা হচ্ছে। এতে দেশব্যাপী দ্রুত সময়ে শাক-সবজিসহ পচনশীল পণ্য পরিবহন ও বিতরণ সম্ভব হবে। এই লক্ষ্যে ডাক পরিবহনের গাড়ি ও দেশের ৬৪টি জেলায় শর্টিং সেন্টারে হিমায়িত চেম্বার করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। ফলে দেশে ডিজিটাল কমার্সের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে এক নতুন দিগন্তের সূচনালগ্নে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

৩ এপ্রিল এটুআই কর্মসূচি ‘একশপ’-এর উদ্যোগে সারা দেশে ন্যাশনাল     ই-কমার্স এজেন্ট তৈরির লক্ষ্যে ডাক অধিদপ্তরের উদ্যোক্তাদের মধ্যে মাস্টার ট্রেইনার প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. সিরাজ উদ্দিন এবং এটুআইয়ের কর্মকর্তা রেজোয়ানুল হক জামি বক্তৃতা প্রদান করেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘ডিজিটাল কমার্স করোনাকালীন লকডাউনে কেনাকাটা সচল রেখেছে। আগামী দিনগুলোতে ডিজিটাল কমার্সের চাপ অনেক বেড়ে যাবে। আমরা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মাস্টার ট্রেইনার তৈরি করছি। এ কারণে ব্যবসার জন্য যতটুকু ডিজিটাল দক্ষতার দরকার সেটার প্রশিক্ষণ নিতে হবে। দেশব্যাপী ডাক বিভাগের সাড়ে আট হাজার উদ্যোক্তাকে পর্যায়ক্রমে এই প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হবে।’