তুরস্কে অভ্যুত্থানের হোতা ইসরাইলি দালাল আটক

তুরস্কে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন ইসরাইলের দালাল তুর্কি জেনারেল আকিন ওজতুর্ক। এরই মধ্যে তাকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ।

তুর্কি গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহ এক প্রতিবেদনে জানায়, বিমান বাহিনীর সাবেক কমান্ডার ও সুপ্রিম মিলিটারি কাউন্সিলের সদস্য জেনারেল ওজতুর্ককে রাজধানী আঙ্কারা থেকে আটক করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

আকিন ওজতুর্ক ইসরাইলের দালাল ছিলন। তিনি ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত তেলআবিবে তুর্কি দূতাবাসের মিলিটারি অ্যাটাশে হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বলে জানিয়ে ইসরাইলি সংবাদপত্র হারেজ। তুরস্কের নির্বাচিত সরকার উৎখাতে জড়িত থাকায় অভিযোগ উঠেছে ওজতুর্ক জায়োনিস্টদের গুপ্তচর ছিলেন।

গত শুক্রবার রাতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েব এরদোগানকে ক্ষমতাচ্যুত করতে সেনাবাহিনীর একাংশের অভ্যুত্থান চেষ্টার ঘটনায় এ পর্যন্ত ২৬৫ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া এ ঘটনায় আহত হয়েছেন এক হাজারের বেশি মানুষ। দেশটির প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিমকে উদ্ধৃত করে এ তথ্য জানিয়েছে আরটি নিউজ।

নিহতদের মধ্যে ১০৪ জন ’চক্রান্তকারী’ বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি।

তুরস্কে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পেছনে জায়োনিজম সমর্থক বিতর্কিত নেতা ফেতুল্লা গুলেনের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

তবে এই অভ্যুত্থানচেষ্টার সঙ্গে কোনো রকম সংশ্রব থাকার কথা নাকচ করে দিয়েছেন গুলেন। তিনি এ ধরনের অভিযোগকে অত্যন্ত দায়িত্বহীন বলেও আখ্যায়িত করেন।

এ অবস্থায় ফেতুল্লাহ গুলেনকে দেশে ফেরত পাঠাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান।