প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে এক চিঠিতে এক স্কুল ছাত্রের প্রশ্নে সারা ভারত তোলপাড়! – ফেসবুকে ভাইরাল খবর

‘মোদি আঙ্কেল, আপনার সভা না আমার স্কুল, কোনটা বেশি জরুরি?’ প্রধানমন্ত্রীকে ক্লাস এইটের এক ছাত্রের এই সামান্য একটা প্রশ্নই তোলপাড় ফেলে দিল ভারতজুড়ে। স্কুলবাস প্রধানমন্ত্রীর সভায় যাবে বলে স্কুল বন্ধ রাখার নোটিশ দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখে ছাত্র-ছাত্রীদের সমস্যার কথা জানায় ওই কিশোর। চিঠিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। এরপর স্কুল খোলা রাখা ও ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বাস চালু রাখার নির্দেশ দেয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার ভারতের মধ্যপ্রদেশের আলিরাজপুর জেলা সফরে যাওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। বিপ্লবী নেতা চন্দ্রশেখর আজাদের জন্মস্থান ভাবরা গ্রাম পরিদর্শনের পাশাপাশি জোথরাডাজেলার কাছে তার জনসমাবেশও করার কথা। স্বাধীনতা দিবসের আগে সেখান থেকেই তিনি শুরু করবেন ‘৭০ সাল আজাদি, ইয়াদ করো কুরবানি’ প্রচার।

ওই এলাকার বিদ্যাকুঞ্জ স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র দেবাংশ জৈন তার শিক্ষকদের কাছে জানতে পারে, প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশে লোক নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের স্কুলবাস ব্যস্ত থাকবে ৯ ও ১০ আগস্ট। সেজন্য ওই দুদিন স্কুল বন্ধ রাখা হচ্ছে। এতেই ব্যথিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে খোলা চিঠি লেখে ওই কিশোর।

মর্মস্পর্শী ভাষায় চিঠিতে সে লেখে, ‘আপনার সমাবেশ কি স্কুলের থেকেও বেশি জরুরি? আপনি যখন আমেরিকাতে বক্তব্য রেখেছিলেন, সেটাও আমি শুনেছি। সেখানেও অনেক লোকের জমায়েত হয়েছিল। তবে, সেখানে তো কেউ স্কুলবাসে চড়ে বক্তৃতা শুনতে যাননি।’

এই কারণে যাতে স্কুলবাসগুলো না নেওয়া হয়, সেজন্য শিবরাজ মামার (মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান) প্রতি আহ্বান জানানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করে দেবাংশ। তার দাবি, ‘আপনারা যদি এটা করেন, তবে আমি হলফ করে বলতে পারি, সমাবেশে নিজে থেকেই গিয়ে ভীড় জমাবে জনতা।’

দেবাংশের এই চিঠি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরই সমাবেশের জন্য স্কুলবাস না নেওয়ার নির্দেশ জারি করে স্থানীয় প্রশাসন। সূত্র: এনডিটিভি