বিশ্বের প্রথম ইসলামী খেলনার দোকান চালু

ব্রিটেনের মুসলিম নাগরিক ‘নাজিয়া নাসরিন’ চরমপন্থাদের মোকাবিলা করার জন্য লন্ডনে বিশ্বের প্রথম ইসলামী-খেলনার দোকান চালু করেছেন।

নাজিয়া নাসরিন বিশ্বের সর্ব প্রথম ইসলামী খেলনার দোকান চালু করেছেন। তিনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে তার খেলানা বিক্রি করেন। ইসলামী-খেলনার দোকানের সুবিধা বিশ্বের সকল শিশুদের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দেয়ার জন্য তিনি ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরণের খেলনা বিক্রয় করে থাকেন।

৩১ বছর বয়সী নাজিয়া দুই সন্তানের জননী। তার দোকানে হিজাবী পুতুল, বিভিন্ন ডিজাইনের জায়নামাজ, প্রার্থনা কার্ড, কুরআনের ফ্ল্যাশ কার্ড এবং আরবি বর্ণমালা ব্লকসহ অন্যান্য ইসলাম খেলনাসমূহ পাওয়া যাচ্ছে। নাজিয়া তার এই ইন্টারনেটের দোকানটি শিশুদের মাঝে চরমপন্থার অবসান ঘটানোর জন্য চালু করেছেন।

তিনি বলেন: অনেক সময় শিশুরা কিছু খারাপ জিনিস থেকে চরমপন্থা শেখে। আমি তাদেরকে সঠিক ও সুন্দর ইসলামী পথ দেখানোর জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আর এ জন্যই শিশুদেরকে সঠিক ইসলামী শিক্ষা দেয়ার জন্য নানা ধরণের ইসলামী বই ও পুতুল ইত্যাদি তৈরি করেছি।

নাজিয়া বলেন: আমি সকল মুসলিম শিশুদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, মুসলমান হওয়ার জন্য তারা যেন গর্ববোধ করে এবং ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান অর্জন করে।

নাজিয়া গুরুত্বারোপ করে বলেন: ইসলামী আদর্শে শিশুদের গড়ে তুলতে হবে। যাতেকরে কোন পরাশক্তি শিশুদেরকে বিভ্রান্ত করতে না পারে।