রমজান

রোজা রাখায় মুসলিমদের মধ্যে করোনার প্রভাব নিয়ে একটি চমৎকার গবেষণা

গত বছর মুসলিমদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুহার অন্য ধর্মের মানুষের তুলনায় অনেক কম ছিল। নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, এর কারণ হচ্ছে রমজানের সময় রোজা রাখা।

জার্নাল অব গ্লোবাল হেলথে বৃহস্পতিবার এ সংক্রান্ত একটি গবেষণা প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, পবিত্র রমজান মাসে রোজা রাখায় মুসলিমদের মধ্যে করোনায় মারা যাওয়ার হার অনেকটাই কম ছিল।

পুরো বিশ্বে এক মাস ধরে রমজান মাসে রোজা রাখেন ধর্মপ্রাণ মুসলিম রা । এসময় তারা সুবেহ সাদিক থেকে ধরে সূর্যাস্ত পর্যন্ত পানাহার থেকে বিরত থাকেন ।

যুক্তরাজ্যে ৩০ লাখের বেশি মুসলমান রয়েছে। যা দেশটির মোট জনসংখ্যার প্রায় ৫% । এদের অধিকাংশই আবার দক্ষিণ এশীয়। গবেষণায় এসেছে যে রমজানে রোজা পালন করা ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে করোনায় মৃত্যুর তেমন কোনো প্রভাব ছিল না। কিন্তু গবেষণায় এসেছিল যে যুক্তরাজ্যে সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় কর্মকাণ্ডের কারণে তাদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এমনকি যুক্তরাজ্যের বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা ছিল যে রমজানে করোনার সংক্রমণ বাড়তে পারে। কারন তাদের গবেষনায় বলা হয়েছে যে রোজা রাখলে ইমিউনিটি সিস্টেম হ্রাস পায়। কিন্তু ঘটেছে তার উল্টো। অর্থাৎ তাদের এই গবেষনা ভুল প্রমানিত হয়ে জানা গেলো যে রোযা রাখায় ইমিউনিটি সিস্টেম বৃদ্ধি পায়।

তবে আমাদের মুসলমানদের বিশ্বাস হল যে যারা সহীহ নিয়ত সহ রমজান মাসের সব রোজা রাখে এবং নিয়মিত নামাজ আদায় করে এবং তাসবিহ তাহলিল আদায় করে তাদের কে আল্লাহ ই হেফাজত করেন।