শেষ পর্যন্ত বৃটেনের বিখ্যাত চার্চটি মসজিদে রুপান্তরিত হচ্ছে

২৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ফজর থেকেই শতাব্দীর পর শতাব্দী চলে আশা এই চার্চটি মসজিদ হিসেবে স্বীকৃতি নিতে যাচ্ছে।

সোয়ান্সির মুসলিম কম্যুনিটি আজ একতাবদ্ধ, সবার মাঝেই দেখি পবিত্র আনন্দ। আশা করবো সবাই ভাই ভাই হিসেবে প্রায় আড়াই মিলিয়ন পাউন্ডের এই প্রজেক্টে অকাতরে যেভাবে দান করেছেন, সেই ভাবে গলাগলি করে আল্লাহর দরবারে সাজদা দিবেন। আল্লাহ সোয়ান্সিবাসী ভাইবোন কে কবুল করুন তাদের বরকত দিন। সারা দুনিয়ার যারাই এই মসজিদে দান করেছেন তাদের দান জান্নাতের ঘর হয়ে জীবনে আসুক। আমীন।

বৃটেইনের অন্যতম টিভি চ্যানেল ‘এস’ এই প্রেজ্ক্টকে সারা ইউরোপের কাছে নিয়েগেছেন। তাদের সাবার অকৃত্রিম সহযোগিতায় এই চার্চ আজ মসজিদ হলো। আল্লাহ চ্যানেল এস পরিবারকেও কবুল করুন। মসজিদের সাথে প্রথম থেকে যারা ছিলেন তাদের অনেকেই কবরবাসী আজ। আল্লাহ তাদেরকে জান্নাত দান করুন। আমীন।

যারা এই মসজিদের নেতৃত্বে ছিলেন ও আছেন তাদেরকে আল্লাহ কবুল করুন। এবং সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে তৌফীক দিন।

এখানে খিদমাত করেছেন বড় বড় উলামা, যাদের কেও কেও জান্নাতবাসী আজ। বিশেষ করে মাওলানা মাহমুদুল হাসান খানকে (র) মনে করতেই হয়।

এখানে হিফজ বিভাগ, মাদ্রাসা বিভাগ, জি সি এস ই, ও আলিমিয়্যাহ বিভাগ বেশ সুনাম কুড়াচ্ছে। তিন শতাধিক ছাত্র ছাত্রী ধন্য এই প্রতিষ্ঠান এগিয়ে যাচ্ছে সামনে ইনশাআল্লাহ।
সবার দুয়া ও সাপোর্ট দরকার।