হজ করতে গিয়ে অলৌকিকভাবে দৃষ্টি শক্তি ফিরে পেয়েছিলেন যিনি

সুদানের অন্ধ হয়ে পড়া ফাতিমা আলমাহি নামক এক বৃদ্ধা পবিত্র হজ করতে গিয়ে মদিনার মসজিদে নববীতে ইবাদত করার সময় দৃষ্টি শক্তি ফিরে পেয়েছেন-দুই বছর আগে মক্কায় ঘটে যাওয়া এই অলৌকিক ঘটনা মুসলমানেরা আজো ভুলতে পারে নি। ওই মহিলা গত ২০১৩ সালে হজ করেছেন। প্রায় সাত বছর আগে দৃষ্টি শক্তি হারিয়ে ফেলেছিলেন ফাতিমা। বেশ কয়েক বার অস্ত্রোপচারের পরও দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাননি তিনি।

ফাতিমা সে সময় জানিয়েছিলেন, অনেকটা অলৌকিকভাবে আমার মনের মধ্যে চিন্তা আসছিল যে এ বছর হজ করতে গিয়ে আমার দৃষ্টি শক্তি ফিরে পাব। সৌদি আরবে প্রবেশের পর আমার মধ্যে এই আশার আলো উজ্জ্বলতর হয়েছিল।

কয়েকদিন মসজিদে নববীতে ছিলাম এবং এই মসজিদের ভেতরে বেশ কয়েক ঘণ্টা ধরে চোখের আরোগ্য লাভের জন্য দোয়া করেছি। এভাবে এক সময় মসজিদের এক কোনায় বসেছিলাম। হঠাৎ টের পেলাম যে চোখের ওপর ছড়িয়ে পড়া কালো পর্দা ধীরে ধীরে বিলীন হয়ে গেল এবং আমার সামনে বসা আমার ছেলের চেহারা স্পষ্টভাবে ভেসে উঠল।

রপর আনন্দে চিৎকার করে ওঠেন সুদানি বৃদ্ধা ফাতিমা। উপস্থিত সমস্ত হজ্বযাত্রীও বিস্ময়ে অভিভূত হয়ে পড়েন। বিশ্বনবী (সাঃ)’র পবিত্র মাজার-সংলগ্ন এই মসজিদ ও পবিত্র কাবাঘর সংলগ্ন স্থানকে দোয়া কবুল হওয়ার শ্রেষ্ঠ স্থান বলে উল্লেখ করে থাকেন আলেম ও ইসলামী বিশেষজ্ঞরা।