১০ আঙুলের ছাপ চেয়েছে সৌদি আরব: বাংলাদেশ পাঠাচ্ছে ৪

আসন্ন হজ মৌসুমে জেদ্দা বিমানবন্দরে ভোগান্তি হ্রাসের পাশাপাশি নিরাপত্তা নিশ্চিতে হজযাত্রীদের ১০ আঙুলের ছাপ চেয়েছে সৌদি সরকার। তবে সেই নির্দেশনা পালনে অক্ষম বাংলাদেশ। সম্প্রতি এক অনুসন্ধানে এ তথ্য জানা গেছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, চাওয়া-পাওয়ার মধ্যে পার্থক্যের কারণে সার্বিক অবস্থান ব্যাখ্যা করে সৌদি সরকারের কাছে পরবর্তী নির্দেশনা চেয়ে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তারা বলেন, চলতি বছর সরকারি বেসরকারি মিলিয়ে নিবন্ধিত লক্ষাধিক নারী, পুরুষ ও শিশুর হজ পালনের কথা রয়েছে। এতো বিপুল সংখ্যক হজ গমনেচ্ছুদের কাছ থেকে পৃথকভাবে ফিঙারপ্রিন্ট (আঙুলের ছাপ) সংগ্রহ করা সময় ও অর্থের সঙ্গে জড়িত। এ কারণে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করে বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে (স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়াধীন পাসপোর্ট অধিদফতর) হজযাত্রীদের প্রত্যেকের মেশিন রিডেবল পাসপোর্টে (এমআরপি) দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ধর্ম মন্ত্রণালয়।

কর্মকর্তারা আরো জানান, সৌদি সরকার দুই হাতের দশ আঙুলের ছাপ সংবলিত ফিঙারপ্রিন্ট চেয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে পাসপোর্টে দুই হাতের (তর্জনী ও বৃদ্ধাঙুল) ফিঙারপ্রিন্ট নেয়া হয়।

শনিবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তাদের এক বৈঠকে এমআরপি পাসপোর্ট ও এতে নেয়া চার আঙুলের ফিঙারপ্রিন্টের নমুনা সৌদি সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়।

চলতি বছর থেকে সৌদি সরকার ইলেকট্রনিক হজ পদ্ধতিতে সামগ্রিক কার্যক্রম পরিচালনার কাজে হাত দিয়েছে। ফলে হজযাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে আগাম ফিঙারপ্রিন্ট সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত নেয়। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেয় সৌদি কর্তৃপক্ষ।

জেদ্দা বিমানবন্দরে গত বছর দায়িত্বপালনকারী একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, বিমানবন্দরে ফিঙারপ্রিন্টসহ ইমিগ্রেশনের জন্য হাজারো মানুষের দীর্ঘ লাইন থাকায় হজযাত্রীদের সার্বিক কার্যক্রম শেষ করতে কয়েক ঘণ্টা লেগে যায়। এ কারণে সৌদি সরকার আগাম এ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

ফিঙারপ্রিন্ট প্রদানের সর্বশেষ অবস্থা জানতে চাইলে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেইন বলেন, যতদূর জানি সৌদি সরকার দশ আঙুলের চাইলেও বাংলাদেশ পাসপোর্টে দেয়া চার আঙুলের ফিঙারপ্রিন্ট দিতে চেয়ে সৌদি সরকারকে অনুরোধ জানাবে।

তবে বিস্তারিত জানতে অতিরিক্ত সচিব শহীদুজ্জামানের সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ দেন তিনি। জাগো নিউজ