৫০ লাখ টাকা নিয়ে বিপাকে ভিক্ষুক

৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিলের ব্যাপক তুলকালাম চলছে ভারতে। এ নোটগুলো পাল্টানোর জন্য দেশটির ব্যাংকগুলোতে দীর্ঘ সারি দেখা যাচ্ছে। লেনদেনে অসুবিধা ও হতাশায় পড়ে এ পর্যন্ত ৩৩ জনের মৃত্যুর খবর পর্যন্ত পাওয়া গেছে। চলছে বিভিন্ন আলোচনা-সমালোচনা।

1

তবে এসব ঘটনাকে যেন ছাপিয়ে গেল এক ভিক্ষুকের ঘটনা। তিনিও ব্যাংকে গিয়েছিলেন সেসব নোট পাল্টাতে। তার টাকার পরিমাণ শুনেই হতভম্ব ব্যাংক কর্মকর্তা।

দেশটির হায়দরাবাদ প্রদেশের ভিখারাবাদ এলাকার একটি ব্যাংকে ৫০ লাখ রুপি পাল্টানোর জন্য ব্যাংকে গিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। সবকিছুই স্বাভাবিক ছিল; ওই টাকা পাল্টানোর জন্য ব্যাংকের কর্মকর্তার দ্বারস্থ হন তিনি। এক কর্মকর্তা অর্থের উৎস সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেন তাকে। এর জবাবে হতভম্ব হয়ে যান ব্যাংকের ওই কর্মকর্তা।

ওই ব্যক্তি জানান, তিনিসহ পরিবারের সবাই ভিক্ষাবৃত্তিতে জড়িত এবং তারা এই অর্থ সঞ্চয় করেছেন। শুধু তাই নয়, ওই ভিক্ষুক আরো জানান, সম্প্রতি তিনি দুই একর জমি বিক্রি করেছেন। পরে জমির কাগজপত্র দেখাতে না পারায় ব্যাংকের কর্মকর্তারা তাকে ফিরিয়ে দেন।