খেলাধুলা/ শ্রীলঙ্কা

দুই দিনের মধ্যেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট দল ঘোষণা

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজের দল প্রায় চূড়ান্ত। কিছু ক্রিকেটারের ইনজুরির আপডেট পেলে দুয়েকদিনের মধ্যেই স্কোয়াড ঘোষণা করে হবে । জানিয়েছেন বিসিবি নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। জাতীয় লিগে পারফরম্যান্স বিবেচনায় থাকলেও, দল নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা না করার ইঙ্গিত দিয়েছেন বিসিবির এই নির্বাচক। এদিকে ছয় মাসের মধ্যে যে কোনো এক ফরম্যাটের ক্রিকেট ছেড়ে দেয়ার যে ইঙ্গিত দিয়েছেন তামিম, সেটা বিসিবি ইতিবাচকভাবেই দেখছে বিসিবি।

দুঃসহ নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষে দেশে ফিরতে না ফিরতেই বাংলাদেশকে ভাবতে হচ্ছে শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে। নিউজিল্যান্ডে ওয়ানডে, টি-২০ খেলা লিটন-সৌম্যদের লঙ্কায় টেস্টের চ্যালেঞ্জ।

শ্রীলঙ্কায় চার বছর পর টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ দল। সবশেষ সফরে আছে নিজেদের শততম টেস্টে জয়ের সুখস্মৃতি। তবে আত্মবিশ্বাসে তলানীতে পুরো দল। সঙ্গে বিসিবি সম্পর্কে সাকিব-মাশরাফী-তামিমদের সাম্প্রতিক বিস্ফোরক সব মন্তব্য। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি নেই পক্ষে। তারপরও বিসিবির ভাবনার পুরোটাই এখন শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে ভরাডুবি এই ফরম্যাট নিয়ে বিসিবি নতুন করে ভাবাচ্ছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাই সতর্ক অবস্থানে বোর্ড। নির্বাচকরা আস্থা রাখছেন পরীক্ষিতদের ওপর। সেক্ষেত্রে মাহমুদউল্লাহর টেস্ট দলের ফেরার গুঞ্জনটাও বাস্তব হতে পারে।

বিসিবি’র নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন বলেন, মুশফিকুর রহিম ফিট হয়ে যাবে, আমরা ওকে পাবো। কিছু ফিটনেস ইস্যু রয়েছে, যার জন্য টিমটা আমরা এখনো দিতে পারিনি। আজ কালের মধ্যে ফিটনেস রিপোর্ট পেয়ে যাবো, তারপরই দল চূড়ান্ত করে ফেলা যাবে।

হাবিবুল বাশার সুমন আরও বলেন, মুশফিক দ্রুতই ফিট হয়ে যাবে। হাসান মাহমুদের ফিটনেস ইস্যু আছে। দুয়েকদিনের মধ্যে ফিটনেস রিপোর্ট পেলে দল চূড়ান্ত হবে। হাতে অপশন নিয়ে যাবো। জাতীয় লিগের দুই রাউন্ডের খেলা হয়েছে। সেখানে সবার পারফরম্যান্স পর্যবেক্ষণ করছি। কিছু ইয়াংস্টার পারফর্ম করেছেন। পুরনো অনেকে ভালো করেছে। সেটা বিবেচনায় নিয়েই দল করবো।

শ্রীলঙ্কার উইকেট বরাবরই স্পিন সহায়ক। সবশেষ সফরের পরিসংখ্যান বলছে সিরিজে ৫১ উইকেট পেয়েছিলেন স্পিনাররা। তাই বলে স্পিন নির্ভর নয়, দলে রাখা হবে ভারসাম্য। নিউজিল্যান্ডের মতো কোয়ারেন্টিনের নিয়ম কঠোর না হওয়ায়, লঙ্কায় বহরও হচ্ছে না দীর্ঘ।

হাবিবুল বাশার সুমন বলেন, আমরা স্পিনার-পেসার দু ফরমেটই নিয়ে যাবো, গেলেই বুঝতে পারবো কন্ডিশনটা কেমন হবে। তামিম টি-২০ সিরিজটি খেলেনি, তবে ও কিন্তু পুরোপুরি বলেনি যে সে আর খেলবে না। আমার বিশ্বাস যখন টি-২০ বিশ্বকাপ হবে, তখন সে এভেইলেভল থাকবে। 

আমরা জানি না উইকেট কেমন হবে। স্কোয়াডে ফাস্ট বোলার স্পিনার সবাই থাকবে। ইমার্জেন্সি হলে ক্রিকেটার নিয়ে যাওয়া যাবে, কারণ ওখানে নিয়ম এতোটা কড়া না, বলেন বাশার।

সম্প্রতি যে কোনো এক ফরম্যাটের খেলা ছেড়ে দেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। বিষয়টিকে ইতিবাচক ভাবেই দেখছে বিসিবি।

হাবিবুল বাশার আরও বলেন, তামিম এই মুহূর্তে টেস্ট এবং ওডিআই নিয়ে ভাবছে। টি-২০ থেকে পুরোপুরি বিদায় নেয়নি। 

তামিম এই মুহূর্তে টেস্ট ও ওয়ানডে নিয়ে ভাবছে। টি-২০ নিয়ে কিছু বলেনি। প্লেয়াররা যদি একটা দুইটা ফরম্যাট বেছে খেলতে চায় সেটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ১২ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার যাবার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের।