পরীক্ষায় প্রথম হয়ে জেলে গেল কিশোরী!

পরীক্ষায় প্রথম হয়েছিল। কিন্তু নকলের অভিযোগ উঠেছিল তার বিরুদ্ধে। তারপর তাকে আবার পরীক্ষা দিতে বলা হয়। আর সেই পরীক্ষায় ফেল করে অভিযুক্ত ছাত্রীটি। তারপরেই তার গন্তব্য হয় জেলখানা। খবর বিবিসির।

ওই স্কুলছাত্রীর নাম রুবি রাই। বয়স ১৭। ভারতের বিহারে পরীক্ষায় সে প্রথম হয়েছিল। তবে কোন শ্রেণির পরীক্ষ সে প্রথম হয়েছিল তা প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়নি।

একটি ভিডিও ইন্টারভিউতে সে জানায় যে তার প্রধান সাবজেক্ট বা বিষয় ছিলো রাষ্ট্রবিজ্ঞান, যেখানে সে রান্নাবান্না নিয়ে পড়াশোনা করেছে। ‘পলিটিক্যাল সায়েন্স’ এই নামটিও সে ঠিকমতো উচ্চারণ করতে পারছিল না। তারপরই ওই ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। তখন কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হলে তাকে আবার পরীক্ষায় দিতে বলা হয়। এবার মেয়েটি পরীক্ষায় ফেল করে। তখন তাকে গ্রেফতার করা হয়। একই সঙ্গে বাতিল করা হয় তার আগের পরীক্ষার ফল।

বুবি রাইকে দ্বিতীয়বারের জন্য যিনি পরীক্ষা নিয়েছিলেন সেই পরীক্ষক বলেছেন, তারা তার পারফরমেন্সে ‘হতবাক’ হয়েছেন। তাকে যখন ভারতীয় কবি তুলসীদাসের ব্যাপারে কিছু লিখতে বলা হয় তখন পরীক্ষার খাতায় সে শুধু লিখে “তুলসিদাস জি প্রণাম।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.