বেসরকারি খাতেও পেনশন সুবিধা চালুর পরিকল্পনা সরকারের!

সরকারি চাকরির মতো বেসরকারি খাতেও পেনশন সুবিধা দ্রুত কার্যকরের অনুরোধ এ খাতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের। বাজেট বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এ পরিকল্পনার কথা জানালেও এজন্য আরো সময় প্রয়োজন বলে মনে করেন সাবেক গভর্নর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন।

সরকারের বর্তমান মেয়াদে এটি চালু করা সম্ভব নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন এ ব্যাপারে সবপক্ষের সাথে কথা বলে দ্রুত নীতিগত প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে।

বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন শ্যামল দাস। প্রায়ই ভাবেন, চাকরি থেকে অবসর নেয়ার পর দুই সন্তানের ভবিষ্যত কতটা নিশ্চিত করা যাবে কারণ অবসরের পর বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা প্রভিডেন্ট ফান্ডএবং গ্র্যাচুইটির টাকা পেলেও পেনশন ভোগ করেন শুধু সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরাই।

কর্মক্ষম মানুষের ৫ শতাংশ সরকারি চাকরিতে নিয়োজিত, যাদের জন্য পেনশন সুবিধা আছে। বাকি ৯৫ শতাংশের মধ্যে মাত্র ৮ শতাংশ শুধু গ্র্যাচুইটি সুবিধা পায়। বাকিদের জন্য কোনো সুবিধা নেই।

pension

তবে আশার কথা বাজেট বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী জানান, খুব শিগগিরি বেসরকারি খাতের চাকরিজীবীদের জন্য পেনশন চালুর পরিকল্পনা আছে সরকারের।

সাবেক গভর্নর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন জানান, সরকারের চলতি মেয়াদে সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা কার্যকর সম্ভব হবেনা। তবে, এর জন্য প্রতিষ্ঠানগুলোর নীতিগত সমর্থন আদায়সহ কিভাবে তা বাস্তবায়ন করা হবে, তার প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করার পরামর্শ তার।

এ খাতে পেনশন চালু করা গেলে, একদিকে যেমন প্রবীণদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত হবে তেমনি দেশের দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ চাহিদা পূরণে সহায়ক তহবিল তৈরি হবে বলে আশা করছে সরকার।