আপনার ফেইসবুক তথ্য চুরি হয়েছে কি না? তা কিভাবে জানবেন

গত সপ্তাহেই সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে, প্রায় ৫৩ কোটি ফেইসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য বেহাত হয়েছে – ওই ডেটাবেইজে পুরো নাম, জন্মদিন, ফোন নম্বর এবং তাদের অবস্থান অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

কী করে জানবেন আপনার অ্যাকাউন্টটিও ওই তালিকায় রয়েছে কি না?

ফেইসবুক বলছে, ২০১৯ সালে এক ব্যাপক তথ্য ফাঁসের ঘটনা ঘটে, যে ত্রুটি পরে ঠিক করা হয়। অবশ্য, ওই ডেটা ফিরে পাওয়া যায় নি। ওই ঘটনায় কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেই তিন কোটিরও বেশি অ্যাকাউন্ট ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এবং আপনার ডেটা ওই ঘটনার শিকার হয়েছিল কি না সেটা জানার রাস্তা ফেইসবুক কঠিন থেকে কঠিনতর করে তুলেছে বলে মন্তব্য উঠে এসেছে বিবিসি’র প্রতিবেদনে।

তবে, এবারের ঘটনায় একটি তৃতীয় পক্ষীয় ওয়েবসাইট, haveibeenpwned.com-এ আপনার ইমেইল ঠিকানা দিয়ে সহজেই চেক করা সম্ভব আপনার অ্যাকাউন্টও ওই তথ্য বেহাতের শিকার হয়েছে কি না। আপাতত, এর মাধ্যমে কেবল জানা সম্ভব আপনার ইমেইল ঠিকানা চুরি যাওয়া অ্যাকাউন্ট তালিকায় আছে কি না।

প্রথমে উক্ত লিঙ্কে প্রবেশ করলে এমন একটি ইনটারফেস আপনার সামনে আসবে

এখানে আপনার ফেসবুক একাউন্টের ইমেইল বা ফোন নাম্বার দিয়ে সার্চ করলে আপনি জানতে পারবেন আপনার একাউন্ট কি ঠিক আছে কি না?

যদিও ৫৩.৩ কোটি ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট তথ্য লঙ্ঘনের মধ্যে পরেছে, তবে, চুরি হওয়া তথ্যের মধ্যে ইমেইল  অন্তর্ভুক্ত রয়েছে মাত্র ২২ লাখ অ্যাকাউন্টের। তার মানে হচ্ছে, আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাকিংয়ের শিকার হওয়ার হওয়ার প্রায় আশঙ্কা শতকরা ২০ ভাগ হলেও শতকরা আধা ভাগ কেবল আশঙ্কা থাকছে ওই চুরি যাওয়া ডেটাবেইজে আপনার তথ্য ফাঁস হওয়ার।

হ্যাভআইবিনপ’নড সাইটের উদ্যোক্তা এবং সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ ট্রয় হান্ট টুইটারে বলেছেন, তিনি এখন বিবেচনা করছেন ফোন নম্বর দিয়েও অ্যাকাউন্ট চুরি যাচাই ব্যবস্থা যোগ করবেন কি না।

ফেইসবুকের কাছে সিএনএন জানতে চেয়েছিল যে কোনো ব্যবহারকারী তার অ্যাকাউন্ট তথ্য বেহাত হয়েছে কি না সেটি যাচাই করতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটি সে সহায়তা করবে কি না। কোনো জবাব মেলেনি ফেইসবুকের কাছ থেকে।

আর কী করা যেতে পারে?

তথ্য ফাঁসের শিকার হোন বা না হোন, আপনার পাসওয়ার্ড পাল্টে ফেলুন আর অ্যাকাউন্ট সিকিউরিটিতে “টু-ফ্যাক্টর অথিনটিকেশন” যোগ করে নিন।