চলছিল পার্টি ! হঠাৎ ১৫জনকে নিয়ে ভেঙে পড়ল বারান্দা ! ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

Home

 বিপদ কখনও বলে আসে না। বাড়িতে বসে বসেই হঠাৎ করে ছাদ ভেঙে মাথায় পড়ে অঘতন ঘটতেই পারে। কিম্বা কোথাও কিছু নেই হঠাৎ কোনও অজানা বিপদের শিকার হতে পারে যে কেউ। তেমনই এক ঘটনা ঘটেছে লস অ্যাঞ্জেলসের মালিবুতে। সকলে আনন্দ করছিলেন, আর তখনই ঘটে যায় ভয়ঙ্কর বিপদ। বারান্দা বা ব্যালকোনি ভেঙে ১৫ ফুট নিচে পড়লেন ৩০ জন।

সপ্তাহ শেষে পার্টি করার জন্য সমুদ্রের ধারে একটি বাড়ি ভাড়া নেন এক মহিলা। সেখানে ৩০ জনকে নিমন্ত্রণ করেন তিনি। সকলে মিলে পার্টির আনন্দে মেতে ওঠেন। আর তখনই ঘটে যায় বিপদ। ১৫ জন এক সঙ্গে এসে গা ঘেষাঘেষি করে দাঁড়াবার চেষ্টা করেন ব্যালকোনিতে। ওই ব্যলকোনি খুব বেশি হলে এক সঙ্গে ১০ জনের ভার বহন করতে সক্ষম। কিন্তু সেখানে ভার এত বেশি হয়, যে চোখের নিমেষে বারান্দা ভেঙে সমুদ্রে পড়ে যায় সকলে। এই ঘটনায় ৫ জন গুরুতর আহত হন। ৪ জন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন।

ওই বাড়ির মালিক বার বার ওই মহিলাকে সতর্ক করেছিলেন তিনি যেন একাধিক লোক বাড়িতে না ডাকেন। খুব বেশি হলে ছয় থেকে সাত জনকে ডাকতে পারেন। কিন্তু মালিকের কথা শোনেননি মহিলা। বারন্দায় এক সঙ্গে বেশি লোক ভিড় জমানোয় পড়শিরা বাড়ির মালিককে ফোন করে জানান। সঙ্গে সঙ্গে বাড়ির মালিক ভাড়াটিয়া মহিলাকে ফোন করে বলেন, ওই বারান্দায় খুব বেশি হলে দশ জন দাঁড়াতে পারে। সকলকে ঘরে ঢুকিয়ে নিন, নয়তো বড় বিপদ ঘটতে পারে। কিন্তু মালিকের কথায় পাত্তা দেননি মহিলা। এই ফোনের ঠিক ১৫ মিনিটের মাথায় হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে বারান্দা। এই ঘটনার প্রতক্ষদর্শীরা আতঙ্কে ভুগছেন। সিসিটিভি ফুটেজ ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ওই বাড়িটিকে বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ। গোটা ঘটনার ভিডিও দেখে শিউরে উঠেছেন অনেকেই। নেট দুনিয়ায় সকলের সুস্থতা কামনা করেছেন মানুষ। সেই সঙ্গে বারণ করার পরেও কথা না শোনার জন্য ওই মহিলা সহ যারা সেদিন পার্টিতে ছিলেন সকলের তীব্র নিন্দাও করা হয়েছে।