পবিত্র কুরআনের প্রাচীন ও দুষ্প্রাপ্য পাঁচ পাণ্ডুলিপি !

পৃথিবীর বুকে হস্তলিখিত প্রাচীন অনেক কুরআন শরিফ রয়েছে। তার মধ্যে ৫ খণ্ড প্রাচীন পাণ্ডুলিপি যা ইসলামের প্রথম যুগে লেখা হয়েছে, তার সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে।

পবিত্র কুরআনের প্রাচীন ৫টি পাণ্ডুলিপির সাথে পরিচিত হন

মুসলমানেরা এমনকি অমুসলিমরাও অন্যান্য গ্রন্থের তুলনায় পবিত্র কুরআনকে অধিক সম্মান করে থাকেন। এই ঐশী গ্রন্থ একমাত্র কিতাব যা বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)এর ওপর যেভাবে নাযিল হয়েছিল, কোন পরিবর্তন ছাড়াই ঠিক সেভাবেই আমাদের মধ্যে বিরাজ করছে।

ঐশী গ্রন্থ পবিত্র কুরআনের ওপর ভিত্তি করে বিশ্বের অনেক আলেম বিভিন্ন তাফসির, তিলাওয়াত, ওয়াকিফ, এবতেদা, ফজিলত, কুরআন তিলাওয়াতের নিয়ম, পবিত্র কুরআনের আহকম, নাসখ ও মনসুখ, কুরআন নাযিলের কারণ, কুরআনের অলৌকিক ঘটনা এবং পবিত্র কুরআনের গল্পের আলোকে অনেক গ্রহণযোগ্য গ্রন্থ লিখেছেন।

পৃথিবীর বুকে পবিত্র কুরআনের এমন ৫টি প্রাচীন পাণ্ডুলিপি রয়েছে যা প্রথম ও দ্বিতীয় হিজরিতে লেখা হয়েছে।

আপনাদের অবগত করার জন্য অতি মূল্যবান ও প্রাচীন হস্তলিখিত ৫ খণ্ড কুরআন শরিফের ইতিহাস উপস্থাপন করা হল:

ইয়েমেনের “আল-দালায়” শহরে হস্তলিখিত কুরআন

এই প্রাচীন কুরআন শরিফটি ইয়েমেনের “আল-দালায়” শহরের সাহাবুল উবুর নামক দুর্গম পর্বত গুহা থেকে একটি যুবক উদ্ধার করেছেন।

পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে উদ্ধারকৃত এই কুরআন শরিফটি ২০০ হিজরিতে লেখা হয়েছে এবং বর্তমানে এই কুরআন শরিফটি বয়স ১২৩৬ বছর।

পবিত্র কুরআনের প্রাচীন এই পাণ্ডুলিপির প্রথম পৃষ্ঠায় লেখ রয়েছে যে, ২০০ হিজরিতে এই কুরআন শরিফটি লেখ হয়েছে এবং এখান থেকে জানা যায়, কুরআনের প্রাচীন পাণ্ডুলিপির মধ্যে এটি একটি।

জার্মানের “ব্যাডেন-ওয়েটেমবার্গ” প্রদেশে কুরআন শরিফের হস্তলিখিত প্রাচীন পাণ্ডুলিপি

জার্মানের “ব্যাডেন-ওয়েটেমবার্গ” প্রদেশে সপ্তম খ্রিস্টাব্দে এই কুরআন শরিফের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। উক্ত প্রদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরী থেকে কুরআন শরিফের এই প্রাচীন পাণ্ডুলিপিটি উদ্ধার করো হয়েছে।

ব্যাডেন-ওয়েটেমবার্গের লাইব্রেরিটি ১৮৬৪ সালে জার্মানের একজন কূটনীতিকের ব্যক্তিগত গ্রন্থ ক্রয় করে। এই কূটনীতিকের ব্যক্তিগত গ্রন্থের মধ্যে এই অমূল্য কুরআন শরিফটিও ছিল। কুরআন শরিফের এই পাণ্ডুলিপিটি ১৩৬৬ বছর প্রাচীন।

থাইল্যান্ডে ‘আন্দালুস‘ বর্ণমালায় প্রাচীন কুরআন

আন্দালুসুল আসল নামে প্রসিদ্ধ এই প্রাচীন কুরআন শরিফটি থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলীয় ‘নাড়তিবাট‘ শহরে সুরক্ষিত রয়েছে। এই কুরআন শরিফটি আন্দালুস শাসক ‘আব্দুর রহমান আল-গাফ্ফাকী‘র অন্তর্গত। তিনি আন্দালুসের এক জন বিশিষ্ট সামরিক কমান্ডার ছিলেন। 732 খ্রিস্টাব্দে এই কুরআন শরিফটি লেখা হয়েছে।

ইয়েমেনের জামে মসজিদে কুরআন শরিফের হস্তলিখিত প্রাচীন পাণ্ডুলিপি

ইয়েমেনের রাজধানী সানা‘র জামে মসজিদে সুরক্ষিত রয়েছে। কুরআন শরিফের হস্তলিখিত প্রাচীন পাণ্ডুলিপিটি জামে মসজিদের সংস্করণ নামে প্রসিদ্ধ। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে জামে মসজিদটি সংস্কারের সময় পবিত্র কুরআনের এই হস্তলিখিত প্রাচীন পাণ্ডুলিপিটি উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে এই কুরআন শরিফটির বয়স ১৩৪৪ বছর।

ইংল্যান্ডে বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কুরআন শরিফের হস্তলিখিত প্রাচীন পাণ্ডুলিপি


পবিত্র কুরআনের এই পাণ্ডুলিপিটি বিশ্বের প্রাচীনতম পাণ্ডুলিপি। এই পাণ্ডুলিপিটির বয়স ১৩৭০ বছর। সম্প্রতি ইংল্যান্ডে বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কুরআন শরিফের হস্তলিখিত উক্ত প্রাচীন পাণ্ডুলিপিটির সন্ধান পাওয়া গিয়েছে।

হস্ত লিখিত পাণ্ডুলিপি বিশেষজ্ঞগণ বলেছেন: এই কুরআন শরিফটি হযরত মোহাম্মাদ (সা.)এর যে কোন একজন সাহাবী অথবা যে কোন একজন তাবেঈন লিখেছেন।

হিজাজ বর্ণমালায় লিখিত এই কুরআন শরিফের পাণ্ডুলিপিতে ১৮ থেকে ২০ নম্বর সূরা পর্যন্ত লেখা রয়েছে।