[PDF] ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর নিয়োগ সহায়িকা PDF Download

Read Time:8 Minute, 26 Second

[PDF] ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর নিয়োগ সহায়িকা PDF Download

হ্যালো জনগন। আজকে আমরা আপনাদের কে ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর নিয়োগ সহায়িকা PDF Download লিংক দিবো। তাহলে চলুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

বইঃ ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর নিয়োগ সহায়িকা PDF Download

টাইপঃ নিয়োগ সহায়িকা

সাইজঃ ২৭এম্বি

কাহিনি সংক্ষেপঃ উপকূল থেকে সামান্য দূরেই একটা প্রাচীন দ্বীপ মাথা উঁচু করে আছে। সেই দ্বীপে ফলি নামের প্রায় ধ্বংসপ্রাপ্ত একটা পুরোনো বাড়িতে বসবাস করে ওয়েডিং প্ল্যানার আইফি ও ফ্রেডি দম্পতি। এই দ্বীপটাকে মেইনল্যান্ডের লোকজন যতোই অশুভ বলুক না কেন, এখানেই সংঘটিত হতে যাচ্ছে একটা গুরুত্বপূর্ণ বিয়ের অনুষ্ঠান।

বিয়েটা ইংল্যান্ডের অন্যতম নামকরা অনলাইন ম্যাগাজিন ‘দ্য ডাউনলোড’-এর মালকিন জুলিয়া কিগান ও উঠতি টেলিভিশন স্টার উইল স্লেটারের। লম্বা ও পারফেক্ট একটা বিয়ের প্ল্যান করেই ওরা এসেছে এই দ্বীপে। ওদের বিয়ে উপলক্ষে মেইনল্যান্ড থেকে দ্বীপে আসতে শুরু করেছে আমন্ত্রিত অতিথিরা।

সবকিছু নিয়মমাফিক ঠিকঠাকই এগোচ্ছিলো। কিন্তু প্রথমেই যে সমস্যাটা দেখা গেলো, সেটা হচ্ছে বিয়ের দিন বিকেল থেকেই খারাপ হতে শুরু করলো আবহাওয়া। বড়সড় একটা ঝড় সমুদ্র থেকে ধেয়ে আসছে দ্বীপের দিকে। দ্বিতীয় সমস্যা যেটা হলো, জুলিয়ার ব্রাইডসমেইড হিসেবে সিলেক্টেড ওর সৎবোন অলিভিয়া অদ্ভুত আচরণ শুরু করলো।

কি এক খেয়ালে ব্রাইডসমেইডের দামী পোশাকটা নষ্ট করতে লাগলো মেয়েটা। ওদিকে উইলের বন্ধু ও বিয়েতে বেস্টম্যানের ভূমিকা পালন করতে যাওয়া জন ভুল করে ফেলে আসলো ওর জন্য নির্ধারিত স্যুট। কি ভাবছেন, শুধু এসবই ঝামেলা? দাঁড়ান। ঝামেলার তো কেবল শুরু।

জুলিয়া ও উইলের বিয়ের ঠিক আগেই জুলিয়া একটা অ্যানোনিমাস নোট পেয়েছিলো, যেখানে ওকে স্পট করে সতর্ক করা হয়েছে সে যেন কোনমতেই উইলকে বিয়ে না করে। এটা কি কোন প্র‍্যাঙ্ক? নাকি সত্যিই কোন ব্যাপার আছে? উইলের স্কুলজীবনের বন্ধু ফেমি, ডানকান, জন ও আংগুস একজায়গায় হতেই যেন নরক নামিয়ে আনার জন্য মরিয়া হয়ে উঠলো ওরা।

স্কুলজীবনের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তিক্ত আর ভয়াবহ কিছু স্মৃতিও দীর্ঘ কয়েক বছর পর আবারো যেন মাথা উঁচু করে দাঁড়ালো ওদের সামনে। পেটে মদ পড়তেই বেফাঁস কথাবার্তা বলা শুরু করলো কেউ কেউ৷

এদিকে সবার অলক্ষ্যে একজন করলো আত্মহত্যার চেষ্টা। আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে অন্যতম, হান্না ও চার্লি দম্পতির মাঝে হঠাৎ-ই সৃষ্টি হয়ে গেলো বিশাল এক দুরত্ব। অতীত যেন কাউকেই ছাড় দিতে রাজি নয় আজ এই অশুভ দ্বীপে। এদিকে রুদ্রমূর্তি ধারণ করেছে ঝোড়ো আবহাওয়া। ধীরে ধীরে আরো আগ্রাসী রূপ নিচ্ছে ঝড়। আর এসবের মাঝেই অতিথিদের মধ্যে শুরু হলো পারস্পরিক বিশ্বাস-অবিশ্বাসের ভয়াবহ টানাপোড়েন।

অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে দ্বীপেরই এক অংশ থেকে আবিস্কৃত হলো গুরুত্বপূর্ণ একজনের লাশ। খুন করা হয়েছে তাকে। কে খুন করলো? কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই অশুভ সেই দ্বীপে জমে উঠলো নাটক। একটা না, একের পর এক নাটকীয় ঘটনা যেন উপস্থিত সবার মনের সঞ্চার করলো আতঙ্কের। ফেলে আসা অতীত যে কাউকেই ছাড়ে না, তা আবারো প্রমাণ হয়ে গেলো। প্রতীয়মান হলো কর্মফলের এক অদ্ভুত অথচ রোমাঞ্চকর খেলা।

পাঠ প্রতিক্রিয়াঃ ব্রিটিশ লেখিকা লুসি ফলি-এর ‘দ্য গেস্ট লিস্ট’ পুরোদস্তুর একটা মিস্ট্রি থ্রিলার উপন্যাস, যার পটভূমি রচিত হয়েছে কয়েকজন ‘অতীত বয়ে নিয়ে বেড়ানো’ মানুষ ও একটা রহস্যময় দ্বীপকে কেন্দ্র করে। গ্রুম উইল, ব্রাইড জুলিয়া, ব্রাইডসমেইড অলিভিয়া, বেস্ট ম্যান জন ও ওয়েডিং প্ল্যানার আইফির জবানিতে বর্ণিত হয়েছে একের পর এক অধ্যায়। আর এভাবেই এগিয়ে গেছে পুরো উপন্যাসের কাহিনি।

বইটার প্রতি আমি প্রথম ইন্টারেস্টেড হই এর ব্যাককভারের কাহিনি সংক্ষেপ পড়ে। এরপর যখন পড়া শুরু করলাম, লক্ষ্য করলাম ধীরস্থির অথচ আকর্ষণীয়ভাবে এগিয়ে যাচ্ছে পুরো গল্পটা। শুরুর দিকে ‘দ্য গেস্ট লিস্ট’ অনেকের কাছেই কিছুটা বোরিং লাগতে পারে এর খুঁটিনাটি বর্ণনা ও ধীর গতিতে চলমান কাহিনির কারণে। তবে বইটার মাঝামাঝির পর থেকেই রহস্য আরো ঘনীভূত হয়েছে, যা একরকম আটকে রেখেছিলো আমাকে কাহিনির সাথে।

কিছু জায়গায় বেশ প্রেডিক্টেবল ছিলো ‘দ্য গেস্ট লিস্ট’। তবে তাতে পড়ার আনন্দটা একেবারেই কমেনি। কেন যেন বইটা পড়তে গিয়ে বেশ কয়েকবার আগাথা ক্রিস্টি-এর বিখ্যাত রহস্য উপন্যাস ‘অ্যান্ড দেন দেয়ার ওয়্যার নান’-এর কথা মনে পড়েছে আমার৷ হয়তো এই মনে পড়াটার জন্য ‘দ্য গেস্ট লিস্ট’-এর দ্বীপে ঘটমান ঘটনাগুলোই দায়ী।

আহনাফ তাহমিদের অনুবাদ বেশ সুখপাঠ্য লেগেছে আমার কাছে। সহজ-সরল ভঙ্গিতেই তিনি অনুবাদ করেছেন ‘দ্য গেস্ট লিস্ট’। অল্প কিছু টাইপিং মিসটেক খেয়াল করেছি। আর বানান জনিত কিছু সমস্যাও আমার চোখে পড়েছে।

যেমন, ভূত-কে ভুত, হঠাৎ-কে হঠাত ও পোশাক-কে পোষাক লেখা হয়েছে সব জায়গাতেই। অবশ্য এখনকার দিনে কে বাংলা একাডেমির বানানরীতি ফলো করছেন আর কে করছেন না, তাও একটা রহস্য আমার কাছে। একেবারে জগাখিচুরি অবস্থা।

চিরচেনা বানানগুলো মাঝেমাঝেই যেভাবে পাইকারি হারে বদলে যায়, তাতে বাংলা একাডেমির বানানরীতি নিয়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে একদমই মাথা ঘামাই না। তবে উপরোক্ত বানানগুলো আমার দৃষ্টিকোণ থেকে ভুল মনে হয়েছে। তাই উল্লেখ করলাম।

বইটার প্রোডাকশন আরো ভালো করা যেতো বলে মনে হয়েছে আমার কাছে৷ কাগজের মান নিয়ে আমি সন্তুষ্ট না। তবে আদনান আহমেদ রিজনের করা প্রচ্ছদ বেশ ভালো লেগেছে।
আগ্রহীরা চাইলে পড়ে দেখতে পারেন ‘দ্য গেস্ট লিস্ট’।
ব্যক্তিগত রেটিংঃ ৩.৭৫/৫

গুডরিডস রেটিংঃ ৩.৮৭/৫

৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর নিয়োগ সহায়িকা PDF Download

Click here to download

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous post [PDF] Recent Bank Model Test PDF Download
Next post [PDF] অফিস সহায়ক পরীক্ষার প্রশ্ন ও সমাধান PDF Download